প্রচ্ছদ > কৃষি > খানসামায় জনপ্রিয় হচ্ছে আউশের আবাদ: কমছে পাট চাষ

খানসামায় জনপ্রিয় হচ্ছে আউশের আবাদ: কমছে পাট চাষ

খানসামা বার্তা : দিনাজপুরের খানসামায় চলতি মৌসুমে আউশ ধানের আবাদ চাষিদের কাছে জনপ্রিয় হয়ে উঠছে। উৎপাদিত পণ্যের বাজার মূল্য ও ফলন কম হওয়ার কারণে এ মৌসুমে পাটের চাষ কমে যাচ্ছে।

গত বুধবার সরেজমিনে দেখা যায়, চলতি বছর উপজেলার প্রায় ৪ হাজার ৫০ হেক্টর জমিতে রসুন এবং ৩৫৫ হেক্টর জমিতে গমের চাষ করা হয়েছে। গত দু’তিন বছর আগে রসুন ও গম চাষের জমিগুলোতে চাষিরা পাটের চাষ করত আগ্রহ সহকারে। গত বছর পাট চাষ হয়েছে ২ হাজার ৮১০ হেক্টর জমিতে। কিন্তু চলতি বছর তারা এসবের বেশির ভাগ জমিতে আউশ ধান চাষ করছে। আর আউশের প্রস্তুতি হিসেবে বিভিন্ন এলাকায় আদর্শ পদ্ধতিতে শুকনা ও ভেজা স্থানে চাষিদের তৈরি বীজতলা বিশেষ ভাবে পরিলক্ষিত হচ্ছে।

উপজেলা কৃষি অফিস সূত্র জানায়, চলতি মৌসুমে আউশ চাষের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে ৬৩৩ হেক্টর জমিতে। গত বছর ছিল ৬২০ হেক্টর। তবে এ পর্যন্ত প্রায় ১ হাজার ৭ শত ২০ হেক্টর জমিতে আউশ রোপন করা হয়েছে। যা গত কয়েক বছরের তুলনায় অনেক বেশি। এ বছর প্রায় তিন হাজার হেক্টর জমিতে আউশ ধানের চাষ হতে পারে বলেও ধারণা করা হচ্ছে। পাশাপাশি সরিষা ও আলু চাষের জমিগুলোর প্রায় ৫ হাজার ৩৫০ হেক্টর জমিতে ইরি বোরোর চাষ করা হচ্ছে।

গোয়ালডিহি চান্দেরদহ গ্রামের আফতাব উদ্দীন, ডাঙ্গাপাড়া গ্রামের দুলাল হোসেন, আলতাব আলী, কায়েমপুর গ্রামের মোজাম্মেল হোসেন, মহসিন আলী, আনিছুর রহমান, মোজাফফর, দুহশুহ গ্রামের আব্দুল বাতেন, জুগীরঘোপা গ্রামের আপেল মাহমুদ, আনোয়ার হোসেন সহ অনেকের সাথে কথা হলে তারা জানান, গত বছর পাটের ফলন ভালো হয়নি। আর এ বছর রসুনের দাম কম। কিন্তু ধানের দাম আছে। তাই বোরো ধানের পাশাপাশি আউশ ধান চাষ করছি। এছাড়া খরচও কম। আগের ফসলে যে সার আছে প্রায় তাতেই আউশ ধান উৎপাদন হবে। এতে পাটের কম ফলন আর রসুনের লোকসান পুষিয়ে নিতে পারবেন বলে আশা করছেন চাষিরা।

উপ-কৃষি কর্মকর্তা শ.ম. জাহেদুল ইসলাম জাহিদ জানান , এ বছর ধানের বাজার মূল্য বেশি রয়েছে। অপরদিকে রসুনের বাজার মূল্য কম থাকায় তার ক্ষতি পুষিয়ে নিতে চাষিদের কাছে আউশ ধানের চাষ জনপ্রিয়তা লাভ করেছে। পক্ষান্তরে গত বছর চাষিদের উৎপাদিত পাটের আশানুরুপ ফলন না হওয়ায় এ বছর অধিকাংশ চাষী পাট চাষে আগ্রহ হারিয়ে ফেলেছে।

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মোঃ আফজাল হোসেন জানান, ভূ-গর্ভস্থ পানি ব্যবহার কম, প্রাকৃতিক পানি দ্বারা সেচ কার্য সম্পন্ন, জীবনকাল কম হওয়ায় এবং আউশ চাষ করে সহজেই আমন চাষ করার ফলে আউশ চাষ দিন দিন কৃষকদের কাছে জনপ্রিয়তা পেয়েছে। তবে সঠিক সময়ে সঠিক পরিচর্যা করলে ভাল ফলন নিশ্চিত হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.